• laptopmockup_sliderdy

Who We Are

Human Development Foundation (HDF) is a company limited by guarantee and licensed under Section 26 of the Companies Act, 1913. It was registered as a non-profit social welfare organization, by the Registrar of the Joint Stock Companies of Bangladesh on 29th November 1993. From the very beginning of its journey, HDF is working with an endeavor to promote welfare of the poor and provide assistance for the distressed through social welfare steps, especially in the field of education. The core programme of the Foundation is Talent Assistance Scheme (TAS), a brainchild of late Alamgir M.A. Kabir, the founder chairman of the Foundation. TAS is directed with the aim of providing financial support in the form of interest-free loan to financially disadvantaged but meritorious students, mostly from rural areas. Every year 60 students, 30 girls and 30 boys, from the level of HSC first year are offered the award of interest-free loan. The assistance continues till the completion of their graduation/post graduation degree without any break. The members are also provided with donations for books and dresses. Another major programme of the Foundation is Rural School Library Enrichment Programme (RUSLEP). The goal of the project is to build up libraries in rural schools with a good stock of suitable books, other than the prescribed text books; and to expose the students to the domain of education and enlightenment in which they are considerably disadvantaged compared to their fellow students of urban background. HDF is also implementing projects in various sectors through partner organizations in different parts of the country.

Who Image

News & Events

আমরা গভীরভাবে শোকাহত

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন এন্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা ও ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. নাজমা চৌধুরী গত ৮ই আগস্ট ২০২১ সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। একুশে পদক প্রাপ্ত এই গুণী শিক্ষাবিদ, গবেষক ও সমাজ সংগঠক এর- মৃত্যুতে হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন পরিবার গভীরভাবে শোকাহত ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে উইমেন এন্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগ প্রতিষ্ঠায় এবং দেশের নারীশিক্ষা ও নারী অধিকার আদায়ে তিনি যে অসামান্য অবদান রেখেছেন তা জাতি চিরদিন শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। উল্লেখ্য, ড. নাজমা চৌধুরী হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের একজন অন্যতম স্পন্সর মেম্বার হিসেবে এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছিলেন। ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৯৪ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত এর জেনারেল বডির একজন সম্মানিত সদস্য হিসেবে তিনি অত্যন্ত নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। ফাউন্ডেশনে আমরা তাকে অত্যন্ত বিনয়ী, সৌহার্দ্যবান এবং সমাজ সচেতন হিসেবে দেখেছি। ফাউন্ডেশনের অগ্রযাত্রায় তিনি প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যে ভূমিকা রেখে গেছেন তা আমরা সবসময় কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবো। আমরা মহান স্রষ্টার কাছে এই উজ্জ্বল ব্যক্তিত্বের রূহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং সেই সাথে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

News Image


মেধা লালন প্রকল্প: অনলাইন ভিত্তিক শিক্ষামুলক কার্যক্রম

 

মেধা লালন প্রকল্প’র প্রিয় সদস্যবৃন্দ,

ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে জানাচ্ছি অনেক অনেক শুভেচ্ছা। করোনা মহামারীর এই কঠিন ও স্থবির সময়ে প্রকল্পের ছাত্র-ছাত্রীদেরকে ইতিবাচক, সৃজনশীল ও গঠনমুলক কার্যক্রমে যুক্ত করার লক্ষ্যে প্রকল্পের বর্তমান সদস্যদের জন্য অনলাইন ভিত্তিক কিছু শিক্ষামুলক কার্যক্রম শুরু করার ব্যাপারে আমরা সক্রিয়ভাবে চিন্তা ভাবনা করছি। কার্যক্রমগুলোর মধ্যে বিষয়-ভিত্তিক আলোচনা, উচ্চশিক্ষা ও ক্যারিয়ার বিষয়ক কর্মশালা, অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা, অনলাইন কাউন্সেলিং  প্রোগ্রাম,  অবহিতকরণ কর্মসূচি ইত্যাদি  অর্ন্তভুক্ত  থাকতে  পারে।  উক্ত  কর্মসূচিগুলো সফলভাবে আয়োজন করার জন্য তোমাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ও সার্বিক সহযোগিতা আমাদের একান্ত কাম্য।

মেধা  লালন  প্রকল্প’র  বর্তমান  সদস্যদের  পাঠ্যক্রম  বহির্ভূত  কার্যক্রমের  অংশ  হিসেবে অনুষ্ঠিতব্য অনলাইন ভিত্তিক এসকল কার্যক্রমে তোমার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য তোমাদের কাছে ইতিমধ্যে ডাকযোগে চিঠি ও তথ্য বিবরণী ফর্ম পাঠানো হয়েছে। উক্ত চিঠি ও তথ্য বিবরণী ফর্ম যদি তোমাদের মধ্যে কেউ না পেয়ে থাকো তাহলে তথ্য বিবরণী ফর্মটি আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে তা যথাযথভাবে পূরণ করে অতি দ্রæত ফাউন্ডেশন বরাবর পাঠানের জন্য তোমাদেরকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হচ্ছে।
 

 

News Image


আমরা গভীরভাবে শোকাহত

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গর্ভনর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ  গত ৩রা মার্চ ২০২১ সকাল ৫.৩০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮০ বছর । খ্যাতিমান ব্যাংকার ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ, খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ - এর মৃত্যুতে হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন পরিবার গভীরভাবে শোকাহত ।

বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতের সার্বিক উন্নয়ন ও সুষ্ঠু বিকাশে খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ যে অসামান্য অবদান রেখে গেছেন তা এ দেশের মানুষ আজীবন শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে। দেশের ব্যাংকিং ব্যবস্থা উন্নয়নে প্রত্যক্ষ অবদান রাখার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত থেকে তিনি বিরল সাংগঠনিক দক্ষতারও পরিচয় দিয়েছেন । উল্লেখ্য, খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ ২০০০ সাল থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন এর গভর্নিং বোর্ডের একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে অত্যন্ত নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন । ফাউন্ডেশনের অগ্রযাত্রায় তিনি প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যে ভূমিকা রেখে গেছেন তা আমরা সবসময় কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবো । আমরা মহান স্রষ্টার কাছে এই উজ্জ্বল ব্যক্তিত্বের রূহের মাগফিরাত কামনা করছি । সেই সাথে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করছি ।

 

 

 

News Image


আমরা গভীরভাবে শোকাহত

 

জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান গত ১৪ মে ২০২০ ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ‍মৃত্যু বরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) । মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর । দেশ বরেণ্য এই শিক্ষাবিদের মৃত্যুতে হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন পরিবার গভীরভাবে শোকাহত।

একজন বরেণ্য শিক্ষাবিদ-গবেষক হিসাবে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখার পাশাপাশি এ দেশের মাটি ও মানুষকে অকৃত্তিমভাবে ভালোবেসে ৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৬৯’র অসহযোগ আন্দোলন সহ ৭১’র মহান মুক্তিযুদ্ধে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে তিনি যে অবদান রেখে গেছেন তা এ জাতি  চিরদিন শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। উল্লেখ্য, অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান ২০০৮ সাল থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ফাউন্ডেশনের জেনারেল বডির একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে অত্যন্ত নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। ফাউন্ডেশনের অগ্রযাত্রায় তিনি প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যে ভূমিকা রেখে গেছেন তা আমরা সবসময় কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবো। আমরা মহান স্রষ্টার কাছে এই উজ্জ্বল ব্যক্তিত্বের রূহের মাগফিরাত কামনা করছি। সেই সাথে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

News Image


Projects

Project Image

TAS

The most significant programme of the Foundation Talent Assistance Scheme (TAS) is directed with the aim of providing financial support in the form of the interest-free loan to financially disadvantaged but meritorious students, mostly from rural areas. The scheme is significant in that it facilitates --

Project Image

RUSLEP

The project was launched in 1986 by the erstwhile BCC Foundation with a view to building up libraries in rural schools with a good stock of suitable books, other than the prescribed textbooks; and to expose the students to the domain of education and enlightenment in which they are considerable --

Project Image

SUPPORTING PROJECT

Besides its own projects i.e. TAS and RUSLEP, HDF has been implementing a number of projects in various sectors through partner organizations in different parts of the country. In order to assess the submitted project proposals and to help the Governing Board to find out the suitable --

Management

Staff Image

LATE ALAMGIR M.A. KABIR

FOUNDER CHAIRMAN
Staff Image

MAJ. GEN. (RETD.) PROF. A. R. KHAN

CHAIRMAN
Staff Image

DR. HAMIDA AKHTAR BEGUM

HONORARY TREASURER
Staff Image

TASNIM HASSAN HAI

EXECUTIVE DIRECTOR